শীত আগমনে খলনায়ক মৌসুমি লঘুচাপ

11

ডিসেম্বরের প্রথম দিন আজ। অথচ রাজধানীবাসীর গায়ে পশমের জামা কিংবা কানটুপি পরে চলার সেই পরিচিত দৃশ্যটা উধাও। গতকাল ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩০ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মাসের অনুপাতে তা অনেকটাই বেড়েছে। তাই হিমের পরশ উপভোগের বদলে এখনো গায়ে সুতির জামা পরেই রাস্তায় লোকজন। শীতের পথে মূলত ভিলেন মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ, যা এখন বঙ্গোপসাগরে বিদ্যমান।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের পর্যবেক্ষণ বলছে, শীতের আমেজ আপাতত অধরা। আশার কথা একটিই- যদি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা বায়ুস্তরের কিছুটা নিচ দিয়ে যায়, তা হলে তার হাত ধরেই কাশ্মীর-হিমালয়ের শীতল হাওয়া অনুঘটক হয়ে ঢুকবে বাংলাদেশে। না হলে ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহের আগে শীত তো দূরের কথা, তার পরশটুকুও পাবে না নগরবাসী।

আপাতত এটি বলাই যায়, ডিসেম্বরের শেষে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহের মধ্য দিয়ে ২০১৯ সালকে বিদায় জানাবে প্রকৃতি। মাসের শেষার্ধে উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে এক থেকে দুটি মৃদু (৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস), মাঝারি (৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। তবে জানুয়ারিতে গোটা দুই তীব্র শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা রয়েছে।
সূত্র: দৈনিক আমাদের সময়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here